এখন সময়:রাত ১০:৪২- আজ: রবিবার-১৬ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ-২রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ-বর্ষাকাল

এখন সময়:রাত ১০:৪২- আজ: রবিবার
১৬ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ-২রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ-বর্ষাকাল

ভিক্টোরিয়া অ্যামেলিনার চারটি কবিতা

ভাষান্তর : জয়দেব কর

 

সাক্ষ্য

এই অদ্ভুত শহরে শুধু নারীরাই সাক্ষ্য দেয়  একজন জানায় হারিয়ে যাওয়া বাচ্চাটির কথা  বেসমেন্টের মধ্যে নির্যাতিত মানুষের কথা জানায় দুইজন

তিনজন জানায় তারা ধর্ষণ স¤পর্কে শুনেনি এবং তারা তাদের চোখ ফিরিয়ে নেয়

সেনাসদর থেকে ভেসে আসা আর্তচিৎকারের কথা জানায় চারজন

পাঁচজন জানায় তাদের আঙ্গিনায় গুলিবিদ্ধ মানুষের কথা

ছয়জন যা বলে তা বোধগম্য হয়ে ওঠে না

সাতজন এখনও খাদ্যের মজুদ হিসেব করছে উচ্চৈঃস্বরে

আটজন আমাকে মিথ্যাবাদী বলে, কারণ এখানে কোনও ন্যায়বিচার নেই

গোরস্থানমুখী হয়ে নিজেদের মধ্যে কথা বলে নয়জন

 

আমিও যাচ্ছি আমার পথে, কারণ এই শহরের প্রত্যেককেই জানি

এর সকলের মৃত্যু আমার মৃত্যু

এবং এর সকল জীবিতরা আমার বোন

 

দশজন জানায় বেঁচে যাওয়া সে মানুষটি স¤পর্কে

যে ওদের হাতে বন্দি ছিল

সে-ই নির্যাতনকারীদের বিষয়ে সাক্ষ্য দিতে পারে

 

আমি তার দরোজায় কড়া নাড়ি

তার প্রতিবেশিনী বেড়িয়ে আসে

সে তার হয়ে উত্তর দেয়:

 

মনে হচ্ছে সে বেঁচে আছে

যাও, নারীদের সাথে কথা বলো

 

ইউক্রেনীয় থেকে ইংরেজিতে ভাষান্তর করেছেন ভ্যালজিনা মর্ট।

 

 

একটি কাক স¤পর্কিত কবিতা

 

অনুর্বর বসন্তের মাঠে

কালো পোশাকে আছে দাঁড়িয়ে এক নারী

বোনদের জন্য কাঁদছে

শূন্য আকাশে একটি পাখির মতো

তাদের সকলের জন্য তার কান্না

 

যে উড়ে গিয়েছিল খুব তাড়াতাড়ি

যে করেছিল মৃত্যুভিক্ষা

যে পারেনি থামাতে মৃত্যুকে

যে করেনি প্রতীক্ষার অবসান

যে করেনি বিশ্বাসের অবসান

যে এখনও নীরবে করে শোক

 

মাটির ভেতর সে কাঁদবে তাদের সকলের জন্য

যেন মাঠে বেদনা করছে রোপন

এবং বেদনা ও নারীদের নামগুলো হতে

তার নতুন বোনেরা জন্ম নেবে ধরিত্রী থেকে

আর আবার গাইবে গান জীবনানন্দে

কিন্তু, তার কি হবে, কাক?

সে এই মাঠে থাকবে চিরকাল

কারণ শুধু এই কান্না তার

ধরে রাখে আকাশের ওইসব আবাবিল

 

তুমি কি শুনতে পাও কীভাবে সে ডাকে

প্রত্যেকের নাম ধরে?

 

ইউক্রেনীয় থেকে ইংরেজি ভাষান্তর করেছেন উইলিয়াম ব্ল্যাকার।

 

 

শিরোনামহীন-১

 

ওই নারীকে দেখো, পেছনে বাড়ানো বাহু?

সে সম্ভবত স্যুটকেস বা কাউকে টেনে নিয়ে আসছে তার সাথে

অদৃশ্য স্যুটকেস অবশ্যই খুব ভারী, তাই সে ধীর

এমন নারী সাধারণত খুবই অদ্ভুত মনে হয়

তার ভস্মীভূত বাড়ি থেকে নিয়ে আসার মতো কিছুই ছিল না

এবং ওখানে তার সাথে কে বাস করত? এখন কেউ জানে না

তবুও তারা তাকে অনুসরণ করে দেখে শ্লথহাঁটা একটি শিশু পেছনে

আর তাই নারীটি থামে : তার জন্য সব সময় থাকে অপেক্ষায়

 

ইউক্রেনীয় থেকে ইংরেজি ভাষান্তর করেছেন লরিসা বাবিজ

 

 

শিরোনামহীন-২

 

এক অদ্ভুত সাগরের পাড়ে দাঁড়িয়ে এক নারী, সর্বস্বান্ত,

আলুথালু চুল, জীর্ণ কাপড়ের জুতো পায়ে,

রক্তাক্ত ঠোঁটে ফিসফিসিয়ে বলছে একটি নাম

স্থানীয়রা ভাবছে এই নারী তার স্বামীকে হারিয়েছে

 

কিন্তু তার উচ্চারিত নাম আমি শুনেছি

এটা কোনও পুরুষের নাম নয়, নয় কোনও শিশুর নাম

সে দাঁড়িয়ে আছে সাগরের পারে এবং ডাকছে সাগরকে

 

সাগরও ভাবছে যে সে তার স্বামীকে হারিয়েছে

এই অদ্ভুত অখ্যাত নামের জবাব দেয় না সে

শুধু ঝিনুকের খোলস ও তীক্ষèধার পাথর ধুয়ে যায়

শুধু সামুদ্রিক ভাষায় ফিসফিসিয়ে বলে:

 

হে নারী, সে তোমার কাছে ফিরবে,

তোমার আজভ

 

ইউক্রেনীয় থেকে ইংরেজি ভাষান্তর করেছেন লরিসা বাবিজ।

চট্টগ্রামী প্রবাদের প্রথম গ্রন্থ : রচয়িতা জেমস ড্রমন্ড এন্ডার্সন

মহীবুল আজিজ জেমস ড্রমন্ড এন্ডার্সন (১৮৫২-১৯২০), সংক্ষেপে জে ডি এন্ডার্সন আজ থেকে একশ’ সাতাশ বছর আগে চট্টগ্রামী প্রবাদের সর্বপ্রাথমিক গ্রন্থটি রচনা-সম্পাদনা করে প্রকাশ করেছিলেন। চট্টগ্রামী

দেশ ও পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার জন্য বৃক্ষরোপণের বিকল্প নেই (সম্পাদকীয়- জুন ২০২৪ সংখ্যা)

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে সম্প্রতি আমাদের দেশসহ উপমহাদেশে যে তাপদাহ শুরু হয়েছে তা থেকে রক্ষা পেতে হলে অবশ্যই প্রয়োজনীয় বৃক্ষরোপণ করতে হবে। এর কোনো বিকল্প নেই