এখন সময়:রাত ১০:৪২- আজ: রবিবার-১৬ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ-২রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ-বর্ষাকাল

এখন সময়:রাত ১০:৪২- আজ: রবিবার
১৬ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ-২রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ-বর্ষাকাল

শাহরুখ খানকে জীবন্ত পুড়িয়ে মারার হুমকি !

যে সিনেমা হলে পাঠান সিনেমা মুক্তি পাবে, সেটি জ্বালিয়ে দেবেন, হুঁশিয়ারি অযোধ্যার মহন্তের। ট্রেলার প্রকাশের শুরু থেকেই বিতর্ক। ইতিমধ্যে কিছু রাজ্যে শাহরুখ-দীপিকার পাঠান সিনেমাটি বয়কটেরও দাবি উঠেছে। এবার এই আগুনে ঘৃতাহুতি পড়ল অযোধ্যার মহন্ত পরমহংসের ভিডিয়োবার্তা। যেখানে শাহরুখ খানকে জীবন্ত পুড়িয়ে মারার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মোহন্ত হনুমান গারহি রাজু দাস। এমনকি যে সিনেমা হলে পাঠান মুক্তি পাবে, সেই সিনেমা হলও পুড়িয়ে দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি। ভিডিয়োবার্তায় ঠিক কী বলেছেন মোহন্ত? মোহন্ত হনুমান গারহি রাজু দাস অযোধ্যায় প্রতিবাদ মঞ্চ থেকে বলেন, “বেশরম রং গানটি গেরুয়া রঙের অপমান করেছে। আমাদের সনাতন ধর্মের মানুষেরা ক্রমাগত এর প্রতিবাদ করছে। আজ আমরা শাহরুখ খানের পোস্টার জ্বালিয়েছি। যদি জিহাদি শাহরুখ খানের সঙ্গে দেখা হয়, আমি তাঁকে জীবন্ত পুড়িয়ে মারব।”

এখানেই শেষ নয়, জনগণের কাছে ‘পাঠান’ সিনেমা বয়কটের আবেদন জানিয়ে ভিডিয়োবার্তায় মোহন্ত বলেছেন, “পাঠান সিনেমাটি সনাতন ধর্মের অপমান করেছে। আমি জনগণের কাছে আবেদন জানাচ্ছি, যে সিনেমা হলে পাঠান সিনেমা মুক্তি পাবে, সেটি জ্বালিয়ে দেবেন।”

শাহরুখ খান-দীপিকা পাড়ুকোনের ‘পাঠান’ সিনেমার ‘বেশরম রং’ গানটির ট্রেলার প্রকাশের পর থেকেই দেশজুড়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে। দীপিকা পাড়ুকোনের গেরুয়া রঙের বিকিনি পড়া নিয়েই বিতর্কের সূত্রপাত। মধ্যপ্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীও সিনেমাটি বয়কটের ডাক তুলেছেন। এরপরই বিতর্কের ঝড় ওঠে অযোধ্যায়। রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ শুরু করেছেন তপস্বী ছাবনির সাধুরা। সেই প্রতিবাদ মঞ্চ থেকেই এবার শাহরুখ খানকে জীবন্ত পুড়িয়ে মারার হুঁশিয়ারি দিলেন অযোধ্যার সাধু হনুমান গারহি রাজু দাস।

চট্টগ্রামী প্রবাদের প্রথম গ্রন্থ : রচয়িতা জেমস ড্রমন্ড এন্ডার্সন

মহীবুল আজিজ জেমস ড্রমন্ড এন্ডার্সন (১৮৫২-১৯২০), সংক্ষেপে জে ডি এন্ডার্সন আজ থেকে একশ’ সাতাশ বছর আগে চট্টগ্রামী প্রবাদের সর্বপ্রাথমিক গ্রন্থটি রচনা-সম্পাদনা করে প্রকাশ করেছিলেন। চট্টগ্রামী

দেশ ও পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার জন্য বৃক্ষরোপণের বিকল্প নেই (সম্পাদকীয়- জুন ২০২৪ সংখ্যা)

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে সম্প্রতি আমাদের দেশসহ উপমহাদেশে যে তাপদাহ শুরু হয়েছে তা থেকে রক্ষা পেতে হলে অবশ্যই প্রয়োজনীয় বৃক্ষরোপণ করতে হবে। এর কোনো বিকল্প নেই